করোনা কালীন সময়ের শুরু থেকে ডাক্তার মিতুল চক্রবর্ত্তী দোয়ারাবাজার বাসীকে সেবা দিয়ে আসছেন অক্লান্ত পরিশ্রম করে। দোয়ারাবাজারের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তিনি অসুস্থ রোগীদের সেবা দিয়ে আসছেন। এর মধ্যে কিছু উল্লেখযোগ্য গ্রাম হলঃ পশ্চিম মাছিমপুর, পূর্ব মাছিমপুর, শরীফপুর, বড়বন, বরইকান্দি, মাঝেরগাঁও, মুরাদপুর, নৈনগাঁও। এমনকি তিনি বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে স্বেচ্ছায় কাজ করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে। কিছুদিন আগে বন্যায় কবলিত মানুষকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন একটি ফেসবুক মেসেঞ্জার গ্রুপের মাধ্যমে। ডাঃ মিতুল চক্রবর্ত্তী জানিয়েছেন, আমি যতদিন বেঁচে আছি এভাবেই যেন মানুষের পাশে থাকতে পারি। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া ও আশীর্বাদ করবেন। আপনাদের শিশুদেরকে নজরে রাখবেন। যাতে তারা পানির আশেপাশে না যায়। কারণ আপনার বাচ্চা পানিতে পড়লে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। বিভিন্ন জায়গায় অনেক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

মিতুল চক্রবর্তী