সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় অবস্থিত ডলুরা শহীদ মিনার, এখানে শায়িত আছেন মহান শহীদ বীরমুক্তিযোদ্ধারা। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়ে যাওয়া সেই শহীদদের কবর। তারা চির নিদ্রায় আছেন। তাদের স্মরণে তৈরি করার হয়েছে উক্ত শহীদ মিনার। যাদের আত্মত্যাগ এর মাধ্যমে বাংলাদেশ পেয়েছি আমরা।

যারা শায়িত আছেন ডলুরা গণকবরেঃ

১। মধু মিয়া

২। মোঃ মন্তাজ মিয়া
৩। সালাউদ্দিন
৪। মোঃ রহিম বখত (ই পি আর হাবিলদার)
৫। মোঃ জবান আলী
৬। মোঃ তাহের আলী
৭। মোঃ আঃ হক
৮। মোঃ মজিবুর রহমান
৯। মোঃ নুরুল ইসলাম
১০। মোঃ আঃ করিম
১১। মোঃ সুরুজ মিয়া
১২। মোঃ ওয়াজেদ আলী
১৩।মোঃ সাজু মিয়া
১৪। মোঃ ধনু মিয়া
১৫। মোঃ ফজলুল হক
১৬। মোঃ সামছুল ইসলাম
১৭। মোঃ জয়নুল আবেদিন
১৮। মোঃ মরম আলী
১৯। মোঃ আঃ রহমান
২০। মোঃ কেন্তু মিয়া
২২। মোস্তফা মিয়া
২৩। মোঃ ছাত্তার মিয়া
২৪। মোঃ আজমান আলী
২৫। মোঃ সিরাজ মিয়া
২৬। মোঃ সামছু মিয়া
২৭। মোঃ তারা মিয়া
২৮। মোঃ আবেদ আলী
২৯। মোঃ আতর আলী
৩০। মোঃ লাল মিয়া
৩১। মোঃ চান্দু মিয়া
৩২। মোঃ সমুজ আলী
৩৩। মোঃ সিদ্দিকুর রহমান
৩৪। মোঃ দান মিয়া
৩৫। মোঃ মন্নাফ মিয়া
৩৬। মোঃ রহিম মিয়া
৩৭। আলী আহমদ
৩৮। মোঃ সিদ্দিক মিয়া
৩৯। মোঃ এ, বি, সিদ্দিক
৪০। মোঃ ছায়েদুর রহমান
৪১। মোঃ রহমত আলী
৪২। মোঃ আঃ হামিদ খান
৪৩। মোঃ আঃ সিদ্দিক
৪৪। মোঃ আঃ খালেক
৪৫। যোগেন্দ্র দাস
৪৬। শ্রীকান্ত বাবু
৪৭। হরলাল দাস
৪৮। অধর দাস
৪৯। অরবিন্দু রায়
৫০। কবিন্দ্র নাথ

আশেপাশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য যে কারো মনকে প্রস্ফুটিত করে তুলবে মূহুর্তে। সবুজ ঘেরা গাছপালা, বয়ে যাওয়া নদী, আঁকাবাঁকা পথ সব কিছুই আপনার ক্লান্তি মূহুর্তের জন্য হলেও দূর করে দিবে।

জেনে নিন কিভাবে যাবেন ডলুরা শহীদ মিনারে: সুনামগঞ্জ ট্রাফিক পয়েন্ট হতে রিক্সা বা বিদ্যুৎ চালিত অটো গাড়িতে যাবেন নবীনগর। নবীনগর হতে সুরমা নদী পাড় হয়ে যাবেন হালুয়াঘাট অথবা সুনামগঞ্জ শহরের রিভার ভিউ (বালুরমাঠ) ঘাট থেকে ইঞ্জিনচালিত নৌকা যোগে যাবেন হালুয়াঘাট। সেখান হতে রিক্সা অথবা টেম্পু যোগে ৫/৬ কিঃ মিঃ পথ অতিক্রম করে ভারতীয় সীমান্তের কাছাকাছি ডলুরা পৌঁছে যাবেন। রিক্সাভাড়া ৫০ টাকা আর টেম্পু ভাড়া ২০ টাকা।